বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১
Ajker Dainik
পটুয়াখালী

 গ্রুপিংয়ে বাউফলে মাদ্রাসার পাঠদান ব্যহত

আজকের দৈনিক | পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

প্রকাশিত: মার্চ ২৯, ২০২৪, ০৪:৪৮ পিএম

 গ্রুপিংয়ে বাউফলে মাদ্রাসার পাঠদান ব্যহত

দলা দলি ও গ্রুপিংয়ের ফলে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার মোহসেন উদ্দিন নূরিয়া ফাজিল মাদ্রাসার পাঠদান ও প্রশাসনিক কার্যক্রম ব্যহত হচ্ছে। এ ঘটনায় ওই মাদ্রাসার শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন আফসারির ছেলে নুর উদ্দিন আফসারি, শ্যালক হাসান রফিক ও ভাই শহিদউল্লাহ পারিবারিকভাবে ওই মাদ্রাসা নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ নেন। 

এরমধ্যে হাসান রফিক ওই মাদ্রাসার আরবী প্রভাষক ও শহিদউল্লাহ ক্বারী। সাবেক অধ্যক্ষর ছেলে নুর উদ্দিন আফসারি ওই মাদ্রাসার অফিস সহকারি কাম কম্পিউটার পদে চাকুরি পেতে তোড়জোড় শুরু করেন। বিষয়টি নিয়ে তারা সবাই অধ্যক্ষ আবদুর রহিমের উপর চাপ সৃষ্টি করেন।

 সম্প্রতি ওই মাদ্রাসায় কয়েকজন কর্মচারী নিয়োগ দেয়া হয়। সেখানে হস্তক্ষেপ করতে না পেরে ক্ষুব্দ হন নুর উদ্দিন আফসারি, তার চাচা শহিদউল্লাহ ও মামা হাসান রফিক। তাই মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে অধ্যক্ষর বিরুদ্ধে প্রায় ২৩টি অভিযোগ দাখিল করেন তারা। 

অধ্যক্ষ আবদুর রহিম বলেন, পান থেকে চুন খসলেই আমার প্রতিষ্ঠান নিয়ে বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ দেয়া হচ্ছে। এসব অভিযোগ সামাল দিতে গিয়েই সময় কেটে যাচ্ছে। পাঠদান ও প্রশাসনিক কার্যক্রমতো ব্যহত হবেই।

 শুধুমাত্র এই প্রতিষ্ঠান পারিবারিককরণ করার উদ্দেশ্যেই তারা নানান ষড়যন্ত্র করছে বলে দাবী করেন তিনি। অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করে নুর উদ্দিন আফসারি বলেন, প্রতিষ্ঠান পারিবারিক করনের ইচ্ছা আমাদের নেই। মাদ্রাসার দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নেছার উদ্দিন বলেন, প্রায় ৬’শ শিক্ষার্থী রয়েছে আমাদের মাদ্রাসায়। প্রতিদিন মাদ্রাসার অফিসে বসলেই সারাক্ষণ শিক্ষকরা টেনশনে থাকেন। কখন তদন্ত টিম আসবে।

আর এসব কারনেই পাঠদানের মানসিকতা হারিয়ে ফেলছেন শিক্ষকরা। সামসুল হক সিকদার নামের একজন অভিভাবক বলেন, আমি বারবার নুর উদ্দিন আফসারিকে মাদ্রাসা নিয়ে ষড়যন্ত্র করতে নিষেধ করেছি। তারপরও তিনি কোনো কথা শুনছেন না। এটার একটা সমাধান হওয়া দরকার।  বাউফলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. বশির গাজী বলেন, ওই মাদ্রাসার পাদঠান বা প্রশাসনিক কার্যক্রম ব্যহত এমন কাজ করতে দেয়া হবে না। এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আ. দৈনিক/ একে/ নাজিম


 

Link copied!